পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম ২০২৩

আজকে আমরা খুবি দরকারি একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো, আর তা হলো পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম। আমাদের দেশের অধিকাংশ রেমিটেন্স আসে আমাদের প্রবাসীদের মাধ্যমে। তাই দেশের সিংহ ভাগ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করে থাকে। বিদেশে যাওয়ার জন্যে আমদের সবচে দরকারি যে জিনিশ তা হলো পাসপোর্ট, আর এই পাসপোর্ট তৈরিতে আমাদের পোহাতে হয় অনেক ঝামেলা। আজকে আমরা তাই এই বিষয় নিয়ে কথা বলো।Passport check korar niyom

আমরা স্বাভাবিক ভাবে ভাবে পাসপোর্ট তৈরি করে থাকি সরকারি ভাবে। কিন্তু আমদের দেশে সরকারি প্রায় সব অফিসে দালালদের অনেক ফাদ থাকে। আমরা অনেক সময় দালালদের খপ্পরে পরে প্রতারিত হতে হয়। পাসপোর্ট করতে যা খরচ হয় তার থেকে বেশি খরচ হয় তা চেক করতে। তাই আমরা আজকে যানবো কিভাবে অনলাইনের মাধ্যমে চেক করতে হয়।

পাসপোর্ট সাধারণত দুই ভাবে চেক করতে হয়। আমরা পাসপোর্ট অফিসে ফর্ম জমাদেয়ার সময় আমাদের একটি স্লিপ দিয়ে থাকে, তা নিয়ে পাসপোর্ট অফিসে গেলে আমরা জানতে পারি আমাদের পাসপোর্টটি হয়েছে নাকি। কিন্তু এই ভাবে যদি আমরা চেক করতে যাই তাহলে আমদের অনেক সময় ও টাকা নষ্ট হয়ে থাকে। কিন্তু আমরা যদি তা অনলাইনে চেক করি তাহলে আমদের সময় ও টাকা দুই বেচে যায়।

আমরা এখনকার সময় অনেক ব্যাস্তো থাকি। আমাদের এই ব্যাস্তো সময়ে থেকে সময় বের করতে অনেক সমস্যা পোহাতে হয়। তাই আমরা আজকে জানবো কিভাবে অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করতে হয়। আসুন তাহলে আমরে জেনে নেই পরবর্তি ধাপ গুলো।

অনলাইনে পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম

পাসপোর্ট সাধারনত দুই ধরনের হয়ে থাকে

  1. মেশিন রিডাবল পাসপোর্ট
  2. ই-পাসপোর্ট

আজকে আমরা জানবো কিভাবে ই-পাসপোর্ট চেক করতে হয়।এখন সারা বিশ্ব হয়ে যাচ্ছে অনলাইন ভিত্তিক। তাই বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে আমাদেরকেও হতে হবে ডিজিটাল। তাই কয়েক বছর যাবত আমাদের দেশেও শুরু হয়েছে ই-পাসপোর্ট। ই-পাসপোর্ট অনলাইনে চেক করা খুবি সহজ। আসুন তাহলে আমরা দেখে নেই চেক করার নিয়মঃ

  • প্রথমে আমরা একটি ওয়েব সাইট ওপেন করবো।
  • তারপরে সেথানে আমরা লিখবো epassport.gov.bd
  • এখন আমরা দেখতে পাবো একটি লিস্ট,সেই লিস্ট থেকে আমরা সিলেক্ট করবো check status .
  • এরপরে আমরা যে ইন্টারফেজ দেখতে পাবো তা Online Registration ID ও Application ID.
  • এখান থেকে আমরা Application ID সিলেক্ট করে সেখানে আমদের ডেলিভারি স্লিপে থাকা নাম্বারটি দিয়ে দেবো।
  • পরের ঘরে পাসপোর্টের আবেদন পত্র অনুযায়ী জন্ম তারিখ বসিয়ে দেবো
  • তারপরে আমরা নিচে দেখতে পাবো একটি ক্যপচার কোর্ডের ঘর।
  • সেখান থেকে আমরা ক্যাপচারটি পূরন করে সাবমিট করে দেবো। তাহলেই আমরা আমাদের ডকুমেন্টি পেয়ে যাবো। 

এখন আমরা দেখবো কিভাবে এম আর পি পাসপোর্ট চেক করতে হয়। নিয়ম কানুন বেশির ভাগি একি রকম। আসুন তাহলে জেনে নেয়া যাক।

  • প্রথমে আমরা যেকোন একটি ব্রাওজার ওপেন করবো।
  • তারপরে আমরা সেখানে লিখবো passport.gov.bd
  • এখন আমরা নিচে থেকে Application Status এর মধ্যে ক্লিক করবো।
  • এখন যে পেজটি আসবে সেখানে থাকা Enrolment Number এর জায়গায় আপনার স্লিপে থাকা নাম্বারটি বসিয়ে দিন।
  • তারপর আপনাদের ফর্ম অনুযায়ী জন্ম তারিখ বসিয়ে দিন,এবং নিচে সার্চ বাটনে ক্লিক করুন।তাহলেই আপনার সকল তথ্য পেয়ে যাবেন।

তো এভাই আমরা আমাদের পাসপোর্ট ঘরে বসি চেক করতে পারি। আমাদের আর সময় নষ্ট করে অফিসে ঘুরতে হবে না। এখনকার যুগে আমরা ঘরে বসেই সব রকম কাজ করে ফেলতে পারি। শুধু আমরা একটু সচেতন হলেই হবে।

শেষ কথা,

প্রিয় পাঠক, আশা করি আমদের পোষ্টি আপনাদের কাছে ভালো লাগবে। এরকম আরো সুন্দর সুন্দর পোষ্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন।

আরো পড়ুন-

সৌদি আরবের ভিসা চেক করার নিয়ম

কাতারের ভিসা চেক করার নিয়ম ২০২৩

কি ভাবে এয়ারটেলে এমবি দেখে

Leave a Comment