ফেসবুক থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়

আমরা সবাই দিনে রাতে কম বেশি অনেক বারি ফেসবুকে ডু মারি। আমরা আমাদের অনেক সময় এই ফেসবুকে নষ্ট করে থাকি। কিন্তু আমরা একটু ইচ্ছা করলেই এই ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করতে পারি। আমরা এই পেশাটা পার্ট টাইম বা ফুল টাইম হিসেবে নিতে পারি।Facebook theke ki vabe Taka income kora zay 

বর্তমান যুগ হচ্ছে প্রযুক্তি নির্ভর, দুনিয়ার সকল ক্ষেত্রেই এখন চলছে প্রযুক্তির উপর। তো আমরা কেন এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত থাকবো। আমরা আজ আপনাদের মাঝে কথা বলবো এই ফেসবুক থেকে কিভাবে ইনকাম করা যায় সেই সম্পর্কে। ফেসবুক বর্তমানে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ও জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম। ফেসবুকের ব্যবহারকারীর সংখ্যা দিন দিন শুধু বেড়েই চলছে ।

বর্তমানে ফেসবুক কে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে অনেক অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যেখান থেকে মানুষ ঘরে বসে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারছেন এবং নিজের আয়ের মাধ্যম হয়ে উঠছে। আমরা কয়েকটি উপায়ে ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করতে পারি। আগে শুধু ফেসবুক পেজ থেকেই টাকা ইনকাম করার সুবিধা ছিল কিন্তু বর্তমানে নিজস্ব প্রোফাইল কেউ প্রফেশনাল  মুড চালু করে  সেখান থেকে ইনকাম করা সম্ভব। নিচে সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

ফেসবুক পেজ থেকে আয়

আমরা ফেসবুকে ডুলেই নানান রকমের পেজের কারনে আমাদের চক্ষু ছানা বড়া হয়ে যায়। আমরা কি কখন ভেবে দেখেছি যে এই রকম অসংখ্য পেজ কি কারনে খোলা হয়েছে? এই সকল পেজের কাজই বা কি? এই সব পেজের বেশির ভাগ পেজ কমাসিয়াল কারনে খোলা হয়েছে। এই সব পেজ থেকে নানা রকম ব্যাবসা করা হয়ে থাকে। আর হয়ে থাকে টাকা ইনকাম।

আপনিও ইচ্ছা করলে একটি ফেসবুক পেজ থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। আর এই জন্যে আপনাকে প্রথমে একটি ফেজবুক পেজ খুলতে হবে। এবং আপনি যদি নানান রকম ভিডিও তৈরি করেন তাহলে আপনিও এই পেজ থেকে আয় করতে পারবেন। এর জন্যে আপনার পেজটি মনিটারাইজেশন করাতে হবে। মনিটরাইজেশন হয়ে গেলে আপনার ভিডিওতে গুগল থেকে নানা রকম অ্যাড শো হবে ।

আর এই অ্যাড শোর কারনে আপনাকে ফেজবুক টাকা প্রদান করবে। আপনি আপনার পেজের জন্যে নানান রকমের ভিডিও বানাতে পারেন যেমনঃ ফানি ভিডিও, শিক্ষা মূলক ভিডিও, ফুড রিভিউ, ট্রাভেল ভিডিও সহ আরো অনেক রকম ভিডিও বানাও যেতে পারে। প্রথম প্রথম আপনার ভিডিওতে ভিউ কম হতে পারে। এই জন্যে আবার পিছিয়ে পড়া যাবে না। লেগে থাকতে হবে। তাহলেই কাক্ষিত লক্ষ্যে পৌছতে পারবেন।

আপনাকে প্রতিনিয়ত ভিডিও গুলো হাল নাগাত করতে হবে, সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে আপনাকে কনটেন্ট ক্রিয়েট করতে হবে, তাহলেই আপনার ভিডিও দর্শকের কাছে সমাদৃত হবে। আপনাকে আপনার পেজে ফোলয়ারের সংখ্যা বাড়াতে হবে, তাহলেই এইখানে আপনার ভিত্তি মজবুত হবে।

এফিলিয়েট মার্কেটিং

ফেজবুক পেজে যখন আপনার ফলোয়ারের সংখ্যা বাড়বে তখন আপনি এফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের দিকে যেতে পারেন। আপনি বর্তমানে এফিলিয়েট মার্কেটিংয়ের সময় খুবি ভাল। কারন এখন অধিকাংশ মানুষ তাদের প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র অনলাইন থেকে ক্রয় করতে পছন্দ করেন। তাই আপনি এই সুযোগটি নিতে পারেন।

আপনি কোন একটি অনলাইন শপের পণ্য আপনার পেজে অয়াডভাটাইজিং করবেন আর ক্রেতাকে সেই শপে থেকে পন্য ক্রয় করতে আগ্রহী করে তুলবেন। ক্রেতা যখন আপনার দেয়া লিংক থেকে ওই শপে গিয়ে শপিং করবেন তখন আপনি তার একটা অংশ পেয়ে যাবেন। আর এটাই হচ্ছে এফিলিয়েন্ট মার্কেটিং।

অনলাইন মার্কেটিং

আপনি আপনার পেজ থেকে মার্কেটিং করতে পারেন। আপনি নানা ককম পণ্য আপনার পেজ থেকে বিক্রয় করতে পারেন, বা অন্যের পণ্য আপনি আপনার পেজ থেকে বিক্রয় করতে পারেন। আপনি অনলাইনে নিজেই নিজের শপ চালু করতে পারেন, অনেক রক পন্যা রয়েছে যা অনলাইনে খুব বেশি ক্রয় বিক্রয় হয়ে থাকে, আপনি সেই সুযোগটি নিতে পারেন। যেমনঃ কসমেটিক্স আইটেম, বাচ্চাদের খেলনা আইটেম, গার্মেন্স আইটেম, নানা রকম শুকনো খাবারের আইটেম ইত্যাদি অনলাইনে খুব বেশি চাহিদা রয়েছে।

আপনাকে দেখতে হবে যে কখন কি রকম পন্যের চাহিদা রয়েছে সে অনুযায়ী আপনাকে আডিয়া নিতে হবে, তাহলেই আপনি আপনার ব্যাবসায় উন্নতি করতে পারবেন। আপনি যদি ছোট খাট কোন ব্যাবসা করতে চান তাহলে ফেসবুক শপ নামে একটি সুন্দর অ্যাপ রয়েছে যা আপনি ব্যাবহার করতে পারবেন। ফ্রিটাতে রয়েছে লিমিটেড সুবিধা আর পেইড ভার্সনটিতে রয়েছে অনেক রকম সুবিধা যা ফ্রিটাতে অনুপস্থিত।

ফ্রিল্যান্সিং

অনেক ফ্রিল্যান্সার রয়েছে যারা কিনা মার্কেট প্লেজে কাজ পায়না , তাঁরা ফেসবুকে ট্রাই করতে পারেন, কারন ফেসবুকে এরকম অসংখ্য পেজ রয়েছে যেখান থেকে ফ্রিল্যান্সাররা কাজ পেতে পারেন। সেখানে অনলাইন মার্কেটার, ভিডিও এডিটর, গ্রাফিক্স ডিজাইনার সহ আরো অনেক রকম কাজের সুযোগ রয়েছে। সেখানে কাজ করে আপনি আপনার কেরিয়ার আরো অনেক ভাল করে এগিয়ে নিয়ে যেতে পারবেন।

শেষ কথা

প্রিয় পাঠক, আশা করি আমাদের এই পোষ্টি আপনাদের ভাল লেগেছে, এই পোষ্টের মাধ্যে আমরা আপনাদের ফেসবুক থেকে কিভাবে আয় করা যায় তার একটা ধারনা দেয়ার চেষ্টা করেছি। আপনাদের যদি এই বিষয়ে কোন রকম পরামর্শ থাকে তাহলে আমাদেরকে কমেন্ট করে যানাতে ভুলবেননা আশা করি ,ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন-

কিভাবে বিকাশ একাউন্ট খুলব

বৃষ্টি নিয়ে ক্যাপশন, স্ট্যাটাস ও কবিতা

মায়া নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস ও কবিতা

বাবা দিবস নিয়ে স্ট্যাটাস, উক্তি ও কবিতা

দুনিয়া নিয়ে উক্তি, হাদিস, স্ট্যাটাস ও কবিতা

বাচ্চাদের হাম হলে করণীয়-শিশুদের হাম কেন হয়

বিদেশ থেকে ব্যাংকে টাকা পাঠানোর নিয়ম-বিদেশ থেকে সহজে টাকা পাঠানোর নিয়ম

টেলিটক ব্যালেন্স চেক – নাম্বার দেখার নিয়ম

বিমানে কি কি নেয়া যাবে না-বিমানের লাগেজ বিধিমালা

Leave a Comment