ইউরোপে কোন কাজের চাহিদা বেশি

আমরা যারা বিদেশে পারি জমাতে চাই তাদের কাছে ইউরোপ একটি স্বপ্নের নাম। প্রায় সবার স্বপ্নেই থাকে ইউরোপ যাওয়ার কথা। কিন্তু শুধু স্বপনে তো আর গেলে চলবে না। আমাদের বাস্তবে যাওয়ার কথা চিন্তা করতে হবে। কি করলে আমরা তুলনা মুলক সহজে যেতে পারবো সেখানে সেই চিন্তা ও সেই অনুযায়ী কাজ করতে হবে। আজকে আমরা কথা বলো ইউরোপ নিয়ে। কি ভাবে সহজে ইউরোপে যাওয়া যায়। বা কোন কাজের উপর সেখানে সবচেয়ে বেশি চাহিদা রয়েছে।Europe kon kajer chahida beshi 

আমরা যারা বাংলাদেশে বসবাস করি তাদের বেসির ভাগ মানুষ গরিব ও মধ্যবিত্ত। তাদের শিক্ষা থাকলেও দেশে তেমন কোন কাজের সুযোগ থাকে না। বাংলাদেশে এখন বেকার সংখ্যা অনেক। দিন দিন তা বেড়েই চলছে। দেশে এখন প্রায় ৭ শতাংশ যুবক তাদের শিক্ষা শেষ করে বসে আছে, কোন কাজের স্বন্ধান পাচ্ছে না। এই ভাবে বেকার না থেকে তারা এখন চায় বাহিরে কোন দেশে গিয়ে তাদের কর্ম সংস্থান করতে। তাই তাদের এখন প্রথম পছন্দ হচ্ছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ। 

কেন আমরা ইউরোপ যেতে চাই 

আমদের দেশ নয় শুধু আমাদের এশিয়া মহাদেশের প্রায় সব দেশের মানুষ তাদের জীবিকার জন্যে যেতে চাওয়া দেশ গুলোর মধ্যে ইউরোপ হচ্ছে প্রথম পছন্দ। কারন সে দেশ গুলো হচ্ছে বিশ্বের উন্নত দেশ হিসেবে পরিচিত। সেখানকার মানুষের জীবন মান অনেক উন্নত। সে সব দেশ অর্থনৈতিক ভাবে খুবি শক্তি শালী। সেখানে মানুষের গড় আয় অনেক বেশি। তাদের গড় আয় ৩০ হাজার ইউ এস ডলার থেকে ৪৫ হাজার ইউ এস ডলার পর্যন্ত। তাই মানুষ জন ইউরোপে যাওয়ার জন্যে এতো এগ্রহী।

সেখানে শ্রম বাজার খুবি ভালো। ইউরোপের প্রায় সব দেসেই শ্রমিকদের প্রচুর চাহিদা থাকে, সেখানে কোন মানুষ বেকার থাকে না। এনং কি সেখানে সে সব শেমিক বাহিরের দেশ থেকে পারি জমায় তাদের জীবন মানো অনেক ভালো। তাই তো আমাদের মতো উন্নয়নশীল ও অন্নুত দেশের মানুষের কাছে ইউরোপ যাওয়া একটি স্বপ্নের নাম। আমরা ইউরোপ যেতে চাই তার প্রধান কারন হচ্ছে আমরা সেখানে গিয়ে কাজ করে আমাদের জীবন সুন্দর করে তুলা। আমরা চাই আমাদের পরিবার নিয়ে খুব সুখে জীবন কাটাতে। তবে আমরা আমাদের দেশে তা  সম্ভব হচ্ছে না। 

আমাদের মতো দেশ থেকে ইউরোপ যাওয়ার আর একটা বড় কারন হচ্ছে ইউরোপের দেশ গুলোতে একবার ভালো করে সেটেল্ট হতে পারলে সেখানে পুরো পরিবার সহ থাকা যায়। তাই তো সমাই চায় ইউরোপের গ্রিন কার্ড হোন্ডার হতে। কিন্তু তা কি আর সহজ। তার জন্যে আমাদের কনেক পথ পারি দিতে হয়। তার জন্যে আমাদেরকে তৈরি হতে হবে যোগ্য হয়ে, তাহলেই আমরা আমাদের স্বপ্ন পুরন করতে পারবো। আসুন তাহলে যেনে নেয়া যাকঃ

যে সকল কজের চাহিদা ইউরোপে বেশি

প্রথমে আমরা শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রথমে থাকা কিছু পেশার কথা বলি , যা সে দেশে খুব বেশি পরিমান চাহিদা রয়েছে। যেমনঃ

ইঞ্জিনিয়ার

ইউরোপে ইঞ্জিনিয়ার পেশার প্রচুর চাহিদা রয়েছে, সেখানে মাঝ মধ্যেই এই পেশার উপর নীয়োগ লক্ষ করা যায়। সেখানে যদি আপনারা বিভিন্ন বিষয়ের উপর ডিপ্লমা করে যান তাহলে খুব ভালো কাজ পাবেন। এবং তাদের সেলারি খুবি সম্মান জনক হয়ে থাকে, তাদের ৩৫০০ ডলার থেকে শুরু করে ৬০০০ ডলার পর্যন্ত বেতন হয়ে থাকে। তাই আপনারা যারা ইউরোপ যেতে আগ্রহী তারা এই পেশার উপর বিশেষ নজর দিতে পারেন।

ডক্টার

এরপরে আসি ডক্টর এর পেশায়, এ পেশাতে অনেক বেশি চাহিদা থাকে। সেখানের অনেক মেডিকেল গুলো অনেক সময় ফরেন ডক্টরদের জন্যে নিয়োগ প্রকাশ করে থাকে। সেখান থেকে অনেক সহজে ভিসা পাওয়া যায়। এবংকি এই পেশাতে সেলারিও অনেক বেশি। সেখানে একজন ডক্টর ৪০০০ ডলার থেকে ৮০০০ ডলার পর্যন্ত বেতন পেয়ে থাকেন।

অন্যান্য পেশা

ডক্টর এবং ইঞ্জিনিয়ার ছাড়াও আরো অনেক রকম পেশা রয়েছে, যেখানে আপনি চাকরির জন্যে আবেদন করতে পারেন। এমন কি আরো অন্যান্য কাজের জন্যেও তারা নিয়োগ দিয়ে থাকেন। যেমনঃ ৪ক্লাস এর ড্রাইভার এর প্রচুর চাহিদা রয়েছে ইউরোপে। সেখানে বড় বড় ট্রাক চালকদের জন্যে রয়েছে অনেক বড় সুযোগ। এ ছাড়া রয়েছে ডেলিভারি বয়, কৃষি কাজ, ওয়েল্ডার,এবং বিভিন্ন রকম কলকারখানার কাজ। আরো রয়েছে নীর্মানাধিন ভবনের কাজ। এই সকল কাজের জন্যে রয়েছে অনেক সুযোগ,

আমাদের ইউরোপ যেতে হলে এই সকল কাজের উপর অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে, তাহলেই আমরা আমদের স্বপ্নের দেশ ইউরোপে যেতে পারবো। এবং আমাদের মনের আশা পুরন করতে পারবো। 

শেষ কথা

প্রিয় পাঠক, আমরা আজকে যে বিষয় গুলো নিয়ে আলচনা করলাম তার বাহিরেও আরো অনেক পেশা থাকতে পারে, আপনারা আপনাদের সুবিধা অনুযায়ী পেশা নির্বাচন করে নিবেন। আশা করি আমাদের পোষ্টি আপনাদের ভালো লেগেছে। পরবর্তী পোষ্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন, ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন-

পাসপোর্ট চেক করার নিয়ম

সৌদি আরবের ভিসা চেক করার নিয়ম

কাতারের ভিসা চেক করার নিয়ম ২০২৩

কি ভাবে এয়ারটেলে এমবি দেখে

সরকারি ভাবে রোমানিয়া যাওয়ার উপায়

Leave a Comment