২১ শে ফেব্রুয়ারি সংক্ষিপ্ত বক্তব্য,সহজ এবং সুন্দর বক্তব্য

২১ শে ফেব্রুয়ারি, আমাদের জাতির ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন। এই দিনে আমরা মাতৃভাষার জন্য প্রাণ দিয়েছিলেন সেই সকল শহীদদের স্মরণে শোক পালন করি এবং তাদের ত্যাগের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। 21 February niye sonkhipto boktobbo 

২১ শে ফ্রব্রুয়ারি নিয়ে ঐতিহাসিক তাৎপর্য:

১৯৫২ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারি, তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানে বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলন শুরু করে। পুলিশের গুলিতে সেদিন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার ও শফিক সহ বেশ কয়েকজন ছাত্র শহীদ হন।

শোক ও বেদনার দিন:

এই দিনটি আমাদের জন্য শোক ও বেদনার দিন। আমরা মাতৃভাষার জন্য প্রাণ দিয়েছিলেন সেই সকল শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাই। তাদের ত্যাগের ফলেই আমরা আজ আমাদের মাতৃভাষায় কথা বলতে পারছি।

গৌরবের দিন:

এই দিনটি আমাদের জন্য গৌরবের দিনও। আমরা গর্ব করি যে আমাদের জাতির সন্তানরা মাতৃভাষার জন্য তাদের জীবন উৎসর্গ করতে দ্বিধা করেননি।

বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতি:

১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ হিসেবে ঘোষণা করে।

আমাদের কর্তব্য:

আমাদের কর্তব্য হলো শহীদদের স্মৃতিকে চিরস্থায়ী রাখা এবং তাদের ত্যাগের মূল্যবোধ ধারণ করে জীবনে এগিয়ে যাওয়া।

২১ শে ফেব্রুয়ারি আমাদের জাতির ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন। এই দিনটি আমাদের মনে মাতৃভাষার প্রতি ভালোবাসা ও শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ জাগ্রত করে।

21 February niye sonkhipto boktobbo 

২১ শে ফেব্র্যারি নিয়ে বক্তব্য

এখন আমরা ২১ শে ফেব্রুয়ারি নিয়ে একটি সুন্দর বক্তব্য দেখে নেব। কারন এই দিনে অনেক রকম সমাবেশ হয়ে থাকে। আর সেখানে আমাদের অনেকের কথা বলতে হয়, আর সে কথা বলার জন্য দরকার হয় সুন্দর কিছু কথার। কিন্তু যদি আমাদের এই রকম মঞ্চে কথা বলার অভ্যাস না থাকে তাহলে কথা বলা খুবি কষ্টের হয়ে থাকেতাই আমরা চেষ্টা করেছি আপনাদের সেই কষ্ট কিছুটা কমানোর। 

আসুন তাহলে দেখে নেই ২১ শে ফেব্রুয়ারি নিয়ে সুন্দর একটি বক্তব্য।

আজ আমরা আমাদের মাতৃভাষা বাংলার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এবং শহীদদের স্মরণে একত্রিত হয়েছি। ১৯৫২ সালের এই দিনে, বাংলা ভাষাকে রাষ্ট্রভাষা করার দাবিতে সাহসী শিক্ষার্থীরা প্রাণ দিয়েছিলেন। তাদের ত্যাগের স্মরণে আমরা আজ শোকাহত, কিন্তু তাদের সাহস ও আত্মত্যাগ আমাদের অনুপ্রাণিত করে।

ভাষা আমাদের অস্তিত্বের মূল। এটি আমাদের সংস্কৃতি, ঐতিহ্য এবং পরিচয়ের বাহন। আমাদের ভাবনা, অনুভূতি এবং অভিজ্ঞতা প্রকাশের মাধ্যম।

বাংলা ভাষা আমাদের গর্ব। এটি বিশ্বের অন্যতম সমৃদ্ধ ভাষা। সাহিত্য, কবিতা, সঙ্গীত, এবং শিল্পের ক্ষেত্রে বাংলা ভাষার অবদান অনস্বীকার্য।

আমাদের কর্তব্য

  • আমাদের মাতৃভাষা বাংলার যথাযথ চর্চা ও প্রসারের জন্য সচেতন হতে হবে।
  • বাংলা ভাষায় শিক্ষা, গবেষণা এবং জ্ঞান-বিজ্ঞানের চর্চাকে উৎসাহিত করতে হবে।
  • বিশ্ব দরবারে বাংলা ভাষার মর্যাদা বৃদ্ধির জন্য কাজ করতে হবে।

আসুন, আমরা সকলে মিলে আমাদের মাতৃভাষা বাংলার উন্নয়নে কাজ করি এবং এর ঐতিহ্য ধারণ করে চলি।

শেষে, শহীদদের প্রতি আমার গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলি।

শেষ কথা

প্রিয় পাঠক, আমরা আমরা আজকে চেষ্টা করেছি আপনাদের মাঝে সুন্দর একটি বক্তব্য তুলে ধরার, আমাদের এই পোষ্টি যদি আপনাদের ভাল লেগে থাকে তাহলে আমাদের পাশেই থাকবেন আশা করি। এরকম আরো সুন্দর ও প্রযোজনিয় পোস্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন, ধন্যবাদ।

আরো পড়ুন-

আখরোটের উপকারিতা-আখরোটে রয়েছে বিশেষ গুণ

শীতের সকাল নিয়ে ক্যাপশন,স্ট্যাটাস, উক্তি ও কবিতা

ব্যবসা নিয়ে ইসলামিক উক্তি, স্ট্যাটাস, বাণী ও কবিতা

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স টিকেট চেক- সর্বশেষ আপডেট

কলিজার বন্ধু নিয়ে স্ট্যাটাস, উক্তি, বাণী কবিতা

ক্ষণস্থায়ী জীবন নিয়ে স্ট্যাটাস, উক্তি, বাণী ও কবিতা

বন্ধুত্বের সম্পর্ক কেমন হওয়া উচিত- বন্ধুত্ব হবে আরো মজবুত

লোভ থেকে বাঁচার উপায়- লোভ থেকে বাঁচতে আপনাকে যা করতে হবে

মুখোশধারী মানুষ নিয়ে উক্তি, স্ট্যাটাস, বাণী ও কবিতা

 

 

 

Leave a Comment